Responsive Ads Here

Monday, 21 August 2017

মেদিনীপুরে কানহাইয়া কুমারের মুখে কালি হিন্দু সংহতির , বিজেপি দেখালো বিক্ষোভ

                                                                                                                                                                       (ফাইল ফোটো)
কলকাতা, ২১ অগাস্ট : মেদিনীপুরে কানহাইয়া কুমারের সভাকে ঘিরে ছড়ালো তুমুল উত্তেজনা। কানহাইয়া কুমার ISIS-এজেন্ট। তিনি ভারত ছেড়ে পাকিস্তানে চলে যান। এই স্লোগান তুলে বিক্ষোভ দেখাল BJP। অন্যদিকে হিন্দুসংহতির সমর্থক অভিজিৎ মাইতি তার মুখে কালি মাখিয়ে দেবার চেষ্টা করে।

আজ মেদিনীপুর শহরের স্পোর্টস কমপ্লেক্সে ছিল লং মার্চ অভিযাত্রীদের কেন্দ্রীয় সংবর্ধনা সভা।কন্যাকুমারী থেকে পঞ্জাব পর্যন্ত কেন্দ্রীয় নীতির বিরুদ্ধে লং মার্চ করছেন কানহাইয়া কুমার। আজ ওড়িশা হয়ে বাংলায় ঢোকে মিছিল। সভার মূল আকর্ষণ ছিলেন কানহাইয়া কুমার। দুপুরে মিছিলে দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের প্রাক্তন সভাপতি কানহাইয়া কুমার যোগ দিতেই বচসা শুরু হয়। তাঁর আসার খবর পেয়েই স্পোর্টস কমপ্লেক্সের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন কয়েকশো BJP কর্মী। তাদের সভা থেকে কাইহাইয়া কুমার ISIS এজেন্ট বলে স্লোগান উঠতে থাকে। স্লোগানে তাঁকে পাকিস্তানের দালাল বলা হয় এবং তিনি যেন এই দেশ ছেড়ে চলে যান, এই দাবিও তোলা হয়। এর জেরে অশান্ত হয় স্পোর্টস কমপ্লেক্স এলাকা।

তবে এলাকায় প্রচুর পুলিশ মোতায়েন থাকায় অশান্তি বেশি দূর ছড়ায়নি। ব্যারিকেড করে BJP কর্মীদের আটকে দেওয়া হয়। তারপরও থামেনি বিক্ষোভ। অন্যদিকে আবার কানহাইয়ার অনুগামীরা সভাস্থানের অদূরে দাঁড়িয়ে পালটা আজাদি স্লোগান দিতে থাকেন। তবে সেই জমায়েত কে লক্ষ্য করে ডিম্ টমেটো পড়তে দেখা যায়।তাঁকে কালো পতাকাও দেখানো হয়
। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ ১৯ জন বিজেপি কর্মীকে আটক করে।

অপরদিকে কানহাইয়া কুমারের সভার প্রতিবাদে আজ হিন্দু সংহতির পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার পক্ষ থেকে বিক্ষোভ কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়। সমাবেশের মঞ্চ থেকে হিন্দু সংহতির পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত সৌরভ শাসমল, মেদিনীপুরের পবিত্র মাটিতে বামপন্থী , কানহাইয়া কুমারের সভার তীব্র সমালোচনা করেন এবং তাঁকে দেশদ্রোহী সম্বোধন করে প্রশাসনের কাছে সেই সভার অনুমতি বাতিল করার আহ্বান জানান। কিন্তু প্রশাসন সভা বন্ধ করার উদ্যোগ না নিলে তমলুক থানার, ধলহরা গ্রামের হিন্দু সংহতির সদস্য, অভিজিৎ মাইতি নিজেই কানহাইয়া কুমারের সভায় ঢুকে তার মুখে কালি মাখিয়ে দেবার চেষ্টা করে। তাকে পুলিশ আটক করেছে বলে জানা গেছে।






No comments:

Post a Comment